Home / অপরাধ / করুণা পরিস্থিতিতে নতুন আতঙ্ক” বিদ্যুৎ বিল”! উখিয়া, কক্সবাজার।

করুণা পরিস্থিতিতে নতুন আতঙ্ক” বিদ্যুৎ বিল”! উখিয়া, কক্সবাজার।

শফিক উল্লাহ ,কক্সবাজার:- 

করুনা পরিস্থিতিতে যখন মানুষ নিজেদের বাঁচাতে যুদ্ধ করছে, সরকার সহ বিভিন্ন সচেতন মহল মানুষকে বাঁচানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের সচেতন মূলক কাজ করে যাচ্ছে, যেমন খেটে খাওয়া মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের ত্রাণ।, উপহার স্বরূপ দেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের মানুষ যারা কর্মহীন,করুনা পরিস্থিতির কারণে যাদের ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ হয়ে গেছে তাদের কাছে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে অর্থ, যখন মানুষ এক বেলা খাওয়ার পর আরেক বেলা খাওয়ার কথা চিন্তা করছে , ঠিক সে সময় উঠে আসছে, হঠাৎ জনগণের কাছে আতঙ্ক নতুন রূপ “বিদ্যুৎ বিল
সচেতন মহলের প্রশ্ন , বিল দেওয়ার জন্য মাইকিং হচ্ছে এর মানে কি? বিদ্যুৎ বিলের কাগজ কেন বাড়িতে বাড়িতে দেওয়া হচ্ছে? তারমানে কি বিদ্যুৎ বিল ডবল এ র ডবল নেওয়ার নতুন পদ্ধতি?

করুনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন উখিয়া ২নম্বর রত্নাপালং বাসিন্দা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, এক কেজি চাউল কেনার ক্ষমতা নেই আমার সেখানে দুই মাসের বিদুৎ বিল ১২০০০/= টাকা কিভাবে দিবে? তিনি আরো বলেন, স্বাভাবিকভাবে আমার প্রতি মাসে বিদ্যুৎ বিল ৬০০/৭০০ টাকার বেশি আসে না,কিন্তু এমন পরিস্থিতিতে এরকম বিদ্যুৎ বিল আমি কখনো আশা করিনি। যেখানে আমার চলতে কষ্ট হয়ে যাচ্ছে সেখানে আমি ১২ হাজার টাকা বিদ্যুৎ বিল কিভাবে দিব?

উখিয়া ২নং রত্নাপালং ইউনিয়ন এর বাসিন্দা শাহ আলম বলেন , ১৬০০০/= টাকার বিদ্যুৎ বিল আমি কিভাবে দিব? আমি নিজেই দিনে আনে দিনে খায়, ইনকাম করতে না পারলে কপালে ভাত জোটে না, সেখানে আবার ১৬০০০/= টাকা বিদ্যুৎ বিল?
জনসাধারণের মতে, সংশ্লিষ্ট মহলের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।বিলের কাগজের ওপর লেখা আছে যে সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক গড় বিল করা হলো। গন্যমান্য ব্যাক্তিদের কাছে জানতে চাই যে গড় মানে কি ডাবলের ও ডাবল হয়?আসলেই কি এটা সরকারি নির্দেশনা?এটা কেমন নির্দেশনা?যে দেশের জনগন আজ তিন মাসের করোনা মহামারী ভাইরাসের কারণে  কাজে যেতে পারে না সেদেশের জনগন কিভাবে ডাবল বিল দিবে ?

About BD LIVE TV LTD

Check Also

আদমদীঘিতে ২১ বস্তা চাল উদ্ধার, আসামিরা ধরাছোঁয়ার বাইরে

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি বগুড়ার আদমদীঘিতে ২১ বস্তা চাল উদ্ধারের ঘটনায় মামলায় আসামিদের ১৯ দিনেও গ্রেফতার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *